লঘুচাপে উত্তাল বঙ্গোপসাগরঃ ৩ নং সতর্ক সংকেত

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর পুরোপুরি সক্রিয় থাকায় উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বঙ্গোপসাগরে ফের একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে সাগর বক্ষ উত্তাল হয়ে উঠেছে। স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে সাগর ও নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। সাগরের বড় বড় ঢেউ তীরে এসে আছড়ে পড়ছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে— লঘুচাপের প্রভাবে আগামী তিনদিন বৃষ্টির প্রবণতা থাকবে। বুধবার সকাল থেকে বৃষ্টি ও বাতাসের গতিবেগ বেড়ে যাওয়ায় গভীর সমুদ্রে জেলেরা মাছ ধরা বন্ধ রেখেছে। উত্তাল সাগর বক্ষের ঢেউয়ের তান্ডবে কারণে জাল গুছিয়ে শতশত মাছ ধরা ট্রলার নিয়ে জেলেরা নিরাপদ আশ্রয়ে এসেছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে— উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপটি বর্তমানে সুস্পষ্ট লঘুচাপ হয়ে বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চল ও এর তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এটি উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার,গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটির বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দর‌কে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়ার সতর্ক বার্তায় বলা হয়, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় বায়ূচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে ও গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে। বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্র বন্দরগু‌লোর উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। তা ছাড়া মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। লঘুচাপের প্রভাবে বুধবার (২৮ জুলাই) বেলা এগারোটা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা, খুলনা বরিশাল, চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ৪৪ থেকে ৮৮ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে।অতি ভারী বর্ষণের কারণে চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকার কোথাও কোথাও ভুমিধ্বসের সম্ভাবনা রয়েছে।সকল মাছধরা ট্রলার সমূহকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে চলাচল করতে বলা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ২৬২ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। এক সপ্তাহ ধরে উপকূলীয় এলাকায় থেমে থেমে হালকা থেকে মাঝারী ও ভারী বৃষ্টিপাতে ভোগান্তিতে পড়েছে খেটে খাওয়া মানুষ।
সূত্রঃ একাত্তর টিভি

সম্পাদনাঃ নূর মোহাম্মদ নূরু
গণমাধ্যমকর্মী
ব্রেকিং নিউজ২৪.কম:-&ফেসবুক-১:-&ফেসবুক-২
nuru.etv.news@gmail.com

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.